বেশি দিন বাঁচতে হলে কম খান

বেশি দিন বাঁচতে হলে কম খান

বেশি দিন বাঁচতে, সুস্থ থাকতে সকলেই চান। বেশি দিন বাঁচতে হলে খাওয়া কমাতে হবে। এই কথাটা হেলায় বলেই থাকি। আর মনে করি যতদিন বাঁচি পেটপুরে খেয়ে বাঁচবো। তবে কিন্তু বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, আয়ু বাড়াতে চাইল ক্যালরির পরিমাণ কমাতেই হবে।

ব্রিগহ্যাম ইয়াঙ্গ ইউনিভার্সিটির বায়োকেমিস্ট্রির অধ্যাপক ও গবেষক জন প্রাইস জানাচ্ছেন, কোষের প্রোটিন উত্পাতনকারী ক্রোমোজোম রাইবোজোম যখন ধীর গতিতে কাজ করে, তখন বয়সের প্রভাবে বুড়িয়ে যাওয়াও ঘটে ধীর গতিতে। রাইবোজোম প্রোটিন উত্পাদনের জন্য কোষের ১০-২০ শতাংশ এনার্জি ব্যবহার করে। আর যখন আমরা কম ক্যালরি গ্রহণ করি, তখন রাইবোজোমের প্রোটিন উত্পাদনও ধীর গতিতে হয়। ফলে রাইবোজোম নিজের ক্ষতিপূরণের জন্যও সময় বেশি পায়। বয়স ধরে রাখার জন্য রাইবোজোমের ক্ষতিপূরণ অত্যন্ত জরুরি।

এই গবেষণার জন্য দু’দল ইঁদুর নিয়ে পরীক্ষা করেন প্রাইস ও তাঁর দলের গবেষকরা। একদলকে প্রচুর পরিমাণ খাবার দেওয়া হয়। অন্যদলকে ৩৫ শতাংশ কম খাবার দেওয়া হয়। যদিও সব রকম পুষ্টির জোগান রাখা হয়। প্রাইস বলেন, ‘‘যখন ক্যালরির পরিমাণ কমিয়ে দেওয়া হয় তখন শরীরে যে রাসায়নিক পরিবর্তন হয় তা বুড়িয়ে যাওয়ার হার কমিয়ে দিতে পারে। গবেষণার সময় যে ইঁদুরদের কম ক্যালরি দেওয়া হয়েছিল তারা অন্যদলের তুলনায় যেমন অসুস্থ কম হয়েছে, তেমনই তাদের এনার্জিও বেড়েছে। তারা বেশি দিন পর্যন্ত সুস্থ ভাবে বেঁচেছে।’’

এই গবেষণার ফল মলিকিউলার অ্যান্ড সেলুলার প্রোটিওমিকস জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *